1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. muktirbarta85@gmail.com : muktirbarta :
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন
এই মুহুর্তে :
কুষ্টিয়া মিরপুরের হাজরাহাটি বাজারে ছায়ানীড় ক্যাফের যাত্রা শুরু এ্যাড: সেনা কুষ্টিয়া জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপের আইন উপদেষ্টা মনোনীত কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে হেরোইন,ইয়াবা ও টাপেন্টাডল সহ ০২ জন গ্রেফতার। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের পৃথক অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার ২ কুষ্টিয়ার চৌড়হাস হাইওয়ে কমিউনিটি ও বিট পুলিশিং সমাবেশ কুষ্টিয়ার বটতৈলে ট্যাপেন্ডা বড়ি সহ আটক – ২,পলাতক-১ কুষ্টিয়া জেলার ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম কুষ্টিয়ায় সাব রেজিস্ট্রার হত্যায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষণ মাতৃকালীন ভাতা : সরেজমিনে না যেয়ে অফিসে বসে যাচাই বাছাই কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে চাঞ্চল্যকর বোমা বিষ্ফোরণ মামলার এজাহার নামীয় আসামী গ্রেফতার।

কুষ্টিয়া ভেড়ামারার দলিল লেখক সমিতির সাবেক সভাপতি আনারুলের বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২১১ বার নিউজটি পড়া হয়েছে


কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ॥

কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলার সাব-রেজিষ্ট্রারের কার্যালয়ে গত ৩১শে আগষ্ট সোমবার দুর্নীতিবাজ দলিল লেখক আনারুল বেআইনীভাবে দলিলে টেম্পারিং করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা খাওয়ার পর তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। কথায় আছে ‘সাত দিন চোরের আর এক দিন গৃহস্থের’ এই আনারুলের বিষয়টিও এমনি ঘটেছে। ধরা খাওয়ার পর থেকে তার বিরুদ্ধে একটির পর একটি দূর্নীতির অভিযোগ উঠে আসা শুরু করেছে। অতি অল্প বয়সেই ভেড়ামারা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লেখক সমিতির সভাপতি হয়েছিলেন বলে প্রতিবেদককে জানান তিনি। তিনি এত অল্প বয়সে ভেড়ামারা পৌরসভার মঠ পাড়াতে সূবিশাল আলীশান বাড়ীও নির্মান করেছেন, একজন সামান্য দলিল লেখক যদি অতি অল্প দিনে কোটি কোটি টাকার পাহাড় বানাতে পারে, সে রেজিষ্ট্রি অফিস গিলেও খেতে পারে বলে মন্তব্য করেন ভেড়ামারার ভূক্তভোগী মহল।
অর্থের বিনিময়ে এই দূর্নীতিবাজ আনারুল একটির পর একটি অপকর্ম করার কারনে দলিল লেখক সমিতির সভাপতির পদও হারিয়েছেন। এখনো তিনি দিনকে রাত আর রাতকে দিন করে যাচ্ছিলেন, কিন্ত বিধি বাম। ধরা খেল দলিলে টেম্পারিং করতে গিয়ে। তিনি শুধু দলিলে টেম্পারিংই করেন না, জমির দলিলও টেম্পারিং করে জমি রেজিষ্ট্রি করে দিচ্ছেন সুুকৌশলে। বর্তমানে দূর্নীতিবাজ ও সূচতুর দলিল লেখক আনোয়ার ভেড়ামারা দলিল লেখক সমিতি থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়ে আছে, কিন্তু তার কার্যক্রম থেমে নেই, আজ রবিবার তিনি কুষ্টিয়া সদর সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে এসেছিল অন্য একজন ব্যক্তির জমি রেজিষ্ট্রি করায়ে দিতে। তার বরখাস্তের বিষয়টি ধামাচাপা ও মিমাংশা করার জন্য বিভিন্ন মহলে অর্থ ছিটিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে প্রমান পাওয়া গেছে।
ভেড়ামারা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে ঘটনার সত্যতার প্রমাণ পাওয়া গেছে। অন্যায়ভাবে একপক্ষকে ঠকিয়ে দিয়ে চুক্তি অনুযায়ী প্রথমে দুই পক্ষের সম্মতির ভিত্তিতে দলিল লেখক আনারুল টিপ সই করার জন্য অফিস সহায়ক নবান্নোর কাছ থেকে নকলা দলিল নিয়ে ক্রেতা-বিক্রতাদের সাক্ষর করার পর দলিলটি কিছু সময়ের জন্য বেআইনীভাবে আপত্তি সত্বেও তাতে টেম্পারিং করে ৫৩ ফুট লেখেন। নবান্ন বিষয়টি ধরে ফেলে তাৎক্ষণিক অফিসের সবাইকে অবগত করেন। সাব-রেজিষ্ট্রার মোঃ যুবায়ের হোসেন সিসিটিভি ফুটেজ ও ক্রেতা-বিক্রতা ও সাক্ষীদের মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদে দলিল লেখক আনারুলের সাথে ক্রেতা হাসিবুল হাসানের পরস্পর যোগসাজসে দাতার অলক্ষ্যে জমি হাতিয়ে নিতে ক্রেতাকে সহায়তা করছিল। যা বেআইনী। বেআইনী কাজে জড়িত থাকা ও রেজিষ্ট্রি অফিসের সুনাম নষ্ট করার অপচেষ্টা করায় আনারুলকে শোকজ করেছেন কর্তৃপক্ষ।
সাব রেজিষ্ট্রার যুবায়ের হোসেন, অফিস সহায়ক নবান্নের সাথে ঘটনার বিষয়ে কথা বলে তাদের বক্তব্য থেকে জানা যায়, আনারুল একজন দুর্নীতিবাজ দলিল লেখক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলিল লেখক সমিতির একাধিক নেতা বলেন, আনারুলের স্বেচ্ছাচারিতা ও প্রতারণামুলক কর্মকান্ডের ভুক্তভোগী অনেকেই রয়েছেন। প্রতারণায় আনারুল এমন কারচুপির আশ্রয় নিয়ে থাকেন যা জানতে ভুক্তভোগীকে অনেক বছর সময় লেগে যায়। যখন কারচুপি ধরা পড়ে বা ফাঁস হয় তখন ভুক্তভোগীর হাত-পা ধরতেও দ্বিধা বোধ করেন না এই আনারুল, ইতিপূর্বে এই ধরনের ঘটনা অনেকবার ঘটিয়েছেন তিনি। ঘটনার পর থেকে সে আত্মগোপনে থেকে গোপনে কাজ করে যাচ্ছে বলে একাধিক তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিবেদক সাথে তার কথা হলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি অকপটে কথা স্বীকার করেন।
ডিউ রাইটার আনারুলের বিরুদ্ধে কি কি বিধি ব্যবস্থা করা হয়েছে এই বিষয়ে জানার জন্য ভেড়ামারা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসার জুবায়ের হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নাই।
প্রতারক ও দূনৃীতিবাজ ডিউ রাইটার আনারুলের বিরুদ্ধে সার্বিক দূর্নীতির বিষয়টি ভালভাবে খতিয়ে দেখে তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান রেজিষ্ট্রি অফিসের নেতা কর্মীসহ তার প্রতারনার স্বীকার স্থানীয় ভূক্তভোগী সাধারন জনগন। সেইসাথে দুদকের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

© All rights reserved © 2020 dailymuktirbarta.com

Design & Developed By : Anamul Rasel

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.