1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. muktirbarta85@gmail.com : muktirbarta :
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১১:০৮ পূর্বাহ্ন
এই মুহুর্তে :
কুষ্টিয়ায় সাংসদ হানিফের উদ্যোগে প্রোটিনযুক্ত খাবার পাচ্ছে রোগীরা কুষ্টিয়ায় করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু ঊর্ধ্বমুখী, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২ সংবাদ প্রকাশের ফলে পেপার বিক্রেতা ইউসুফের পাশে উদ্ভাবক মিজানুর রহমান উল্লাপাড়ায় পানিতে ডুবে কিশোরের মৃত্যু। বেলকুচিতে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার ফোন করলেই করোনা রোগীর বাড়ি পৌঁছে যাবে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন কুষ্টিয়াতে দুই দিনে দুই দোকান চুরি আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা গোয়ালন্দে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন বিনোদন নির্ভর নতুন প্যাকেজ নিয়ে এলো আকাশ ‘আকাশ লাইট প্লাস’ প্যাকেজটির মাসিক সাবস্ক্রিপশন ফি ৩০০ টাকা

“স্বস্তি ফিরেছে ক্রেতাদের মধ্যে” কুষ্টিয়ায় বাজারগুলোতে কমেছে শীতের সবজির দাম

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৮০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

 

সামরুজ্জামান (সামুন), কুষ্টিয়া

দীর্ঘদিন পর কুষ্টিয়ায় বাজারগুলোতে শীতের সবজির দাম কমে আসায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে ক্রেতাদের মধ্যে। বাজারে শীতের সবজি, বিশেষ করে ফুলকপি, বাঁধাকপি, শিম ও মুলার সরবরাহ বেড়েছে। মূলত এ কারণেই সবজির দাম কমতে শুরু করেছে। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর-২০) কুষ্টিয়ার কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের তুলনায় বেশ কিছু সবজির দাম অর্ধেকে নেমে এসেছে।

বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ বাড়ার কারণে সব ধরনের সবজির দাম কমতে শুরু করেছে। গত সপ্তাহে যে পালন শাক ২০ টাকায় কিনতে হয়েছে, এ সপ্তাহে সেই পালন শাক ১০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। বাজারে আগের চেয়ে একটু বড় আকারের ফুলকপি ও বাঁধাকপি এসেছে। গত সপ্তাহে ১৫ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া মুলা এখন ৫ থেকে ৮ টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে।

মঙ্গলবার কুষ্টিয়ায় মিনিসিপাল বাজার, সাদ্দাম বাজার, বড় বাজার, ঘোড়ার ঘাট বাজার, হরিশংকরপুর বাজার ও লাহিনী বটতলা বাজার ঘুরে দেখা যায়, আগে ছোট আকারের ফুলকপির দাম ছিল ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি।আজকে তার চেয়ে বড় অর্থাৎ মাঝারি আকারের ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৬ টাকা কেজি দরে। আর বাঁধাকপি পাওয়া যাচ্ছে ১০ থেকে ১৩ টাকা কেজি দরে। দাম কমার তালিকার শীর্ষে রয়েছে মুলা। এতদিন যে মুলা প্রতি কেজি ৩০ টাকা ছিল, সেই মুলা ৫ থেকে ৮ টাকার মধ্যেই বিক্রি হচ্ছে। ২৫ টাকার লাউও এখন প্রতিটি পাওয়া যাচ্ছে ১০ থেকে ১২ টাকায়। দাম কমেছে পেঁয়াজেরও। পেঁয়াজের প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩২ থেকে ৪০ টাকা করে। আর এ সপ্তাহে রসুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে। আগের চেয়ে কমেছে কাঁচা মরিচের দামও। কাঁচা মরিচের কেজি ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

লাহিনী বটতলা বাজারে কাঁচা তরকারি বিক্রেতা বলেন, ‘বাজারে জিনিসপত্রের দাম অনেকটাই সস্তা। সব জিনিসের দাম কমেছে।’ দাম কেন কমছে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, ‘সরবরাহ ভালো, তাই কমতে শুরু করেছে।’ কিছু দিনের মধ্যেই সবজি, পেঁয়াজ ও আলুর দাম আরও কমে আসবে বলে জানান তিনি।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে বরবটির দাম কমেছে। এখন প্রতি কেজি বরবটি বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা থেকে ১৯ টাকা মধ্যে। বেগুনের দামও কমে ১০ টাকা থেকে ১৫ টাকার মধ্যে চলে এসেছে। আর বাজারে উঠেছে নতুন আলু এখন কেজি প্রতি ৪০ থেকে ৪৫ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।

অবশ্য আগের মতো চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে গাজর ও পাকা টমেটো। বাজার ও মানভেদে গাজরের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকায়। আর পাকা টমেটোর কেজি ৮০ থেকে ১০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। তবে বাজারে নতুন আসা কাঁচা টমেটো ৩০ থেকে ৪০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
© All rights reserved © 2020 dailymuktirbarta.com

Design & Developed By : Anamul Rasel

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.