1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. muktirbarta85@gmail.com : muktirbarta :
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন
এই মুহুর্তে :
কুষ্টিয়ার মিরপুরে সন্ত্রাসী হামলায় প্রধান শিক্ষক আহত কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিল সহ ০১ জন আসামী গ্রেফতা কুষ্টিয়ার মিরপুরে গৃহবধূকে আগুনে’ পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ গাজীপুরে কল্যানপুর দরবার শরীফে অগ্নিসংযোগ ভাংচুর লুটপাটের প্রতিবাদে মানববন্ধন পুনাক কুষ্টিয়া’র উদ্যোগে মা ও শিশু পূনর্বাসন কেন্দ্রের বৃদ্ধ মহিলাদের মাঝে উন্নতমানের খাবার ও চাউল বিতরণঃ কল্যানপুর দরবার শরীফে অগ্নিসংযোগ ভাংচুর লুটপাটের প্রতিবাদে মেহেরপুরে মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় গলায় দড়ি দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা কুষ্টিয়া -ঝিনাইদহ মহাসড়কে চলছে মৃত্যের মিছিল,ঝড়ে গেলো ৪ বিড়ি শ্রমিকের প্রাণ সন্ত্রাসী টোকেন চৌধুরীর গ্রেফতার দাবি কল্যানপুর দরবার শরীফে অগ্নিসংযোগ ভাংচুর লুটপাটের প্রতিবাদে জেলায় জেলায় মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ মিলন মন্ডল আটক

ইবি এলাকায় শীতে কাপছে বেদে পরিবার শীত বস্ত্র নিয়ে পাশে দাড়ানোর আকুতি

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৬৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি।

সারাদেশ যখন শীতে কাঁপছে, শীত বস্ত্র বিতরণের কত নিউজ কত মিডিয়ায় প্রকাশ হচ্ছে, কত কম্বল বিতরণ চলছে কিন্তু তাদের খবর কেউ রাখেনা। একদল রহস্যময় মানুষ।

যাযাবরের মতো ঘুরে বেড়ায় এখানে-ওখানে ওরা। এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় দেখা যায় এদের। দেশে দেশে বা অঞ্চলভেদে তাদের একেক নাম, আর বেঁচে থাকার জন্য বিচিত্রসব পেশা। অদ্ভুত তাদের ভাষা । বলছিলাম বেদে বা সাপুড়ে জনগোষ্টির কথা। ভ্রমণশীল বা ভবঘুরে নদী পথ নির্ভর বাংলাদেশে সাপুড়েদের বাহন ছিল নৌকা। নৌকায় সংসার, আবার নৌকা নিয়ে ঘুরে বেড়ানো দেশ-দেশান্তর।

কিন্তু কালের বিবর্তনে অনেক নদীতে নৌকা চলার মত পানি নাই। তাই চলে না নৌকা। কিন্তু তাদের যাযাবর জীবন যাত্রা বন্ধ নাই। এখনও তারা বিভিন্ন বাহনে দেশ থেকে দেশান্তর নদী পাড়ে বা খোলা আকাশের নিচে তাবু বেধে বাপ দাতার পেশা সাপ খেলা কিংবা তাবিজ কবজ বিক্রি করে চলে তাদের জীবিকা। এখনও তারা যাযাবর বলেই এদের জীবন বৈচিত্রময়।

এমনি একটি বেদে দলের দেখা মেলে কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার ইবি থানার উজান গ্রাম ইউনিয়নের গজনবীপুর গ্রামের লালন তৈল পাম্পের সামনে খোলা আকাশের নিচে ধানের মাঠে তাবু বেধে শিশু, বৃদ্ধ সহ পরিবারের সকলকে নিয়ে বসবাসরত বেদে বা সাপুড়ে সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠির। প্রচন্ড শীতে যখন মানষ ঘরের ভিতরে ল্যাপ তোশকেও কাঁপছে, কাটছেনা শীত। অথচ বেদেরা জীবিকার তাগিতে তাবু বেধে হালকা শীত নিবারনের কাপড়ে দিনাতিপাত করছে। কথা হয় তাদের সাথে।
তারা জানান শীতে দরিদ্রদের মাঝে অনেকেই শীত বস্ত্র বিতরন করে কিন্তু আমাদের ভাগ্যে জোটেনা। আমাদের এখানে এই তাবুর নিচে রাত হলে কাপতে কাপতে ঘুমিয়ে যেতে হয়।আবার কিছুদিন হলো এখানে একজন মা হয়েছে,শীতে তাদের অবস্থা করুন। যেহেতু স্থানীয় না আমরা তো সাপড়ে যাযাবর, আমাদের নেই চেয়ারম্যান, নেই মেম্বর তাই কেউ আমাদের খোঁজ খবর রাখেনা, পাইনা আমরা শীত নির্বারনের জন্য শীতবস্ত্র। তারা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন আমরা এখানে ১১ জন বেদে পরিবার আছি এখন তারা বলেন আমরা যেখানেই থাকিনা কেন কর্তৃপক্ষ যেন আমাদের খোঁজ খবর রাখেন, সহায়তা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

© All rights reserved © 2020 dailymuktirbarta.com

Design & Developed By : Anamul Rasel

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.