1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. muktirbarta85@gmail.com : muktirbarta :
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ১২:০১ অপরাহ্ন
এই মুহুর্তে :
উল্লাপাড়ায় মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার ৩০ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পেল দলিল ও ঘরের চাবি। কক্সবাজার থেকে কোম্পানীগঞ্জে এসে দুই ইয়াবা কারবারি গ্রেফতার কুষ্টিয়ার ইবি থানা পুলিশের অভিযানে ৭ জোঁয়াড়ে আটক ঢাকায় বাংলার গায়েন শিল্পীদের কেপিসির স্মরণিকা তুলে দিলেন মিডিয়া ব্যাক্তিত এস এম সুমন কুষ্টিয়ায় টাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। সিরাজগঞ্জে আরও ৪৮১পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভূমি ও ঘর এ উপলক্ষ্যে- সংবাদ সম্মেলন। সিরাজগঞ্জে দুঃস্থ এবং সুবিধাভোগীদের মাঝে চেক ও সেলাই মেশিন বিতরণ করলেন – এমপি হাবিবে মিল্লাত । সিরাজগঞ্জে সদর উপজেলার প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ইমামদের নিয়ে সম্মেলন ও ইমামগণের করণীয় শীর্ষক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত। সরকারি বিধিনিষেধ ও কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে ভুমিকা রাখছে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগ কুষ্টিয়ায় ডিসি, এসপি ও জেডি এনএসআই এক সাথে কঠোর বিধিনিষেধ প্রত্যক্ষ করলেন

কুষ্টিয়ায় ৩৪ রিক্সাওয়ালার জন্য প্রথম আলোর মায়াকান্না ও এক বাসন্তির গল্প

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

প্রধানমন্ত্রীী কেন প্রথম আলো পত্রিকা পড়েন না, কেন এই পত্রিকাটা গণভবনে প্রবেশ করতে দেন না তা বুঝলাম পত্রিকাটির আচরণ দেখে।

কুষ্টিয়ার ৩৪ রিক্সাওয়ালার জন্য দরদ উথলে উঠলো প্রথম আলোর। পরপর দুদিন তাদের জন্য পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করেছে অথচ এই জেলার ২২ লক্ষ মানুষের কথা ভাবলো না পত্রিকাটি। কুষ্টিয়ায় কমপক্ষে ৩ হাজার রিক্সা আছে। সেখানে মাত্র ৩৪ জনকে নিয়ে তাদের এত মাথা ব্যথা? কুষ্টিয়ায় রিক্সাওয়ালাদেরও রাজনৈতিক সংগঠন সক্রিয়। রয়েছে বিএনপির জাতীয়তাবাদী রিক্সা শ্রমিক দল। বিএনপিপন্থীদের বেছে নিয়ে প্রথম আলো পত্রিকা যে সংবাদের অবতারনা করলো তার বাস্তবতা কোথায়? কোথায় সেই রিক্সা শ্রমিকরা? একজন রিক্সাওয়ালা বললেন আমরা ৫/১০ বছর ধরে রিক্সা চালাই। আমাদের কি ৭ দিনেরও খাবার মজুদ নেই? আমাদের কথায় দোকানদাররা কি ১০ দিনের বাকিতে খাদ্য সামগ্রী দিবে না? আমি কিংবা আমার পরিবারের কারও করোনা রোগ হয় তখন কি এই রিক্সা বিক্রি করেও তাকে বাঁচাতে পারবো?
তিনি ক্ষোভের সাথে বলেন, পেপারে আমাদের নিয়ে রাজনীতি করা কি ঠিক হচ্ছে?
এ প্রসঙ্গে মনে পড়ে যায়, বঙ্গবন্ধুর সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে, আন্তর্জাতিকভাবে হেয় করতে উত্তরবঙ্গে বাসন্তি নামের এক মহিলাকে জাল পরিয়ে ছবি তুলে তা পত্রিকায় ছাপানো হয়েছিল। বিশ্ববিবেককে বুঝাতে চেয়েছিল বাংলাদেশে এমনই দুরাবস্থা যে নারীরা পরিধানের শাড়ি পর্যন্ত পাচ্ছে না। তারা মাছ ধরার জাল পরে লজ্জা নিবারন করছে। ষড়যন্ত্রকারীরা তখন ৬০ টাকায় শাড়ি না কিনে ৫০০ টাকার জাল কিনে পরিয়েছিল বাসন্তি নামের এক ভারসাম্যহীন নারীকে এবং সেটি ফলাও করে তুলে ধরেছিল পত্রিকার পাতায়। কুষ্টিয়ার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে লকডাউন পালন করছে। স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলছে। প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে লাশের মিছিল দেখে শংকিত বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলা কুষ্টিয়ার ২২ লাখ মানুষ। পত্রিকাটির দায়িত্ব ছিলো জনসচেতনতা সৃষ্টি করা। তা না করে তারা সরকার বিরোধী রাজনৈতিক সংগঠনের লোকজনকে নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে উস্কাচ্ছে। প্রতিনিধি তার রাজনৈতিক দর্শনের বাস্তবায়ন করছে নাকি পত্রিকাটির আদর্শ ও উদ্দেশ্য কি গণবিরোধী এই প্রশ্ন কুষ্টিয়ার সচেতন মহলের। কুষ্টিয়ার এক হারানো বিড়ালকে নিয় যত বড় ফিচার ছাপা হয়েছিল প্রথম আলো পত্রিকায় অথচ মানুষের অধিকার নিয়ে সেই জায়গা পায়নি কুষ্টিয়ার মানুষ। বিএনপি- জামায়াত জোট সরকারের সময় কুষ্টিয়ায় বিএনপির ক্যাডার বাহিনী প্রখ্যাত সাংবাদিক নেতা ইকবাল সোবহান চৌধুরীর উপর হামলা চালিয়ে তাকে রক্তাক্ত করে। পরের দিন ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিইউজে ও বিএফইউজের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা হয়েছিল। সেই প্রতিবাদ সভায় সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ছাড়াও অনেক স্বনামধন্য পত্রিকার সম্পাদক ও সাংবাদিকরা এসেছিলেন সমবেদনা ও হামলার প্রতিবাদ জানাতে। সেখানে অনেকের মধ্যে বক্তব্য দিয়েছিলেন সে সময়ের তরুন সাহসী সাংবাদিক নেতা শাবান মাহমুদ। তিনি বক্তব্যে ক্ষোভের সাথে বলেছিলেন কোথায় আজ মতি ভাই। লক্ষিপুরে আপনার প্রতিনিধি টিপুর উপর হামলার ঘটনায় আমরা সবাই প্রতিবাদ করেছিলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার চিকিৎসার সকল ব্যয় বহন করেছিলেন। আর আজ সাংবাদিক সমাজের শিরোমনি ইকবাল ভাইয়ের শরীর থেকে রক্ত ঝরছে সেখানে আপনি কোথায়? আপনার পত্রিকায় নিউজ কোথায়? অথচ লক্ষিপুর প্রতিনিধির জন্য আপনার পত্রিকা জুড়ে নানা কল্পকাহিনী ছাপানো হয়েছে আর আজকের সত্য সংবাদটি আপনি ছাপছেন না?
টিপু ইস্যু করে লক্ষিপুরে আওয়ামীলীগকে নিশ্চহ্ন করা ও সারাবিশ্বে শেখ হাসিনার সরকারকে হেয় করায় ছিলো প্রথম আলোর মুল উদ্দেশ্য। সাধারন মানুষের বক্তব্য প্রথম আলো ট্রাস্ট আছে। সেই ট্রাস্টের মাধ্যমে এই ৩৪ রিক্সাওয়ালার পাশে দাঁড়ালে তারা উপকৃত হতো। আসলে তাদের উদ্দেশ্য পাশে দাঁড়ানো নয়, টিপু ইস্যুর মত পানিঘোলা করা। প্রথম আলো কুষ্টিয়ায় করোনাযোদ্ধা হিসেবে অনেককে সার্টিফিকেট দিয়েছিলো। এদের কয়েকজন বাদে অধিকাংশই যারা ঘর থেকে মাঠে নামেনি তারা পেয়েছে যা কুষ্টিয়ায় হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে।
প্রথম আলো সম্পাদক নিজেই যেখানে মাঠে নামেননি তিনি দিচ্ছেন করোনা যোদ্ধার সার্টিফিকেট?

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
© All rights reserved © 2020 dailymuktirbarta.com

Design & Developed By : Anamul Rasel

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.